Category: activities

Auto Added by WPeMatico

পাঠচক্রে জহির রায়হানের চলচ্চিত্র ‘জীবন থেকে নেয়া’

‘জীবন থেকে নেয়া’ জহির রায়হান পরিচালিত সর্বশেষ চলচ্চিত্র। মুক্তি পায় ১৯৭০ সালের ১০ এপ্রিল। আইয়ুব খানের পতনের পরে তখন শুরু হয় ইয়াহিয়া খানের শাসন। সামাজিক এই চলচ্চিত্রে তৎকালীন বাঙালি স্বাধীনতা আন্দোলনকে রূপকের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন রাজ্জাক, সুচন্দা, রোজী সামাদ, খান আতাউর রহমান, রওশন জামিল, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। এই চলচ্চিত্রে ‘আমার সোনার বাংলা’ গানটি চিত্রায়িত হয়েছিল; যা পরবর্তীকালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। এ ছাড়া কাজী নজরুল ইসলামের বিখ্যাত গান ‘কারার ঐ লৌহ কবাট’ এই সিনেমায় ব্যবহার করা হয়েছে।

ডিআইইউ বন্ধুসভার বইমেলা ভ্রমণ ও পাঠচক্র

ঢাকার ফুসফুস খ্যাত রমনায় আলোচনা করা হয় লেখক চৌধুরী আনোয়ারের প্রকাশিত প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘জুলিও কুরি শেখ মুজিব’। ৬০ পৃষ্ঠার বইটিতে ফুটে ওঠে ৫২-এর ভাষা আন্দোলনে শহীদ, ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের তাৎপর্যসহ বিশেষভাবে উল্লিখিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর কৃতিত্বময় প্রাপ্তি ‘জুলিও কুরি’ অর্জনসংবলিত কবিতাগুচ্ছ।

সাতক্ষীরায় একুশে বইমেলায় সেরা হলো বন্ধুসভার স্টল

বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা বন্ধুসভার স্টলে দায়িত্ব পালন করেন সাতক্ষীরা বন্ধুসভার বন্ধুরা। স্টলে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, লেখক ও পাঠকেরা ভিড় করেন এবং বই কিনেন। সর্বোচ্চসংখ্যক বই বিক্রি হয়েছে কবি ও কথাসাহিত্যিক আনিসুল হকের নতুন উপন্যাস ‘কখনো আমার মাকে’। এ ছাড়া একাত্তরের চিঠি, একুশে লেখা, একুশে আঁকা বই বিক্রির তালিকায় এগিয়ে আছে।

ভ্রমণকাহিনি লেখার কৌশল নিয়ে আলোচনা

ভ্রমণসাহিত্য রচনা নিয়ে কথা বলেন প্রবীর কান্তি বালা। তিনি বলেন, ‘ভ্রমণকাহিনির ভাষা হবে সাবলীল, পাঠক যাতে লেখা পড়ে বিবরণে ঢুকে যেতে পারে। লেখক যখন লিখবেন—‘‘ফরিদপুর থেকে ট্রেনে চেপে ভাঙ্গা পর্যন্ত যাওয়ার সময় রেললাইনের দুই পাশের প্রকৃতি, ছোট–বড় পুকুর, দূরের গাছপালা মনে দোলা দেয়’’ এবং পাঠক যখন এই লেখা পড়বেন, তিনি যেন মনে করতে পারেন তিনিই ওই ট্রেনে ভ্রমণ করছেন।’

গ্রন্থাগারের প্রায় ৪০ হাজার বই ঝেড়েমুছে সাজিয়ে দিলেন বন্ধুরা

সরকারি এ গণগ্রন্থাগারে ৫০০ বছরের পুরোনো দুর্লভ বইসহ অসংখ্য বই রয়েছে। এসব বইয়ের ওপর জমে থাকা ধুলাবালুর আস্তরণ পরিষ্কার করেছেন কিশোরগঞ্জ বন্ধুসভার বন্ধুরা। এ কাজে অংশ নেন অন্তত ২০ বন্ধু। এ ছাড়া বন্ধুরা গ্রন্থাগার পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও চেয়ার-টেবিল সাজিয়ে রাখেন।

দেশজুড়ে বন্ধুসভার উদ্যোগে বইমেলা

এ বছর সারা দেশের বিভিন্ন বন্ধুসভার উদ্যোগে স্থানীয়ভাবে বইমেলা আয়োজনের জন্য বিশেষভাবে উৎসাহ ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছে জাতীয় পরিচালনা পর্ষদ। এ লক্ষ্যে মাসের শুরুতেই পর্ষদের পক্ষ থেকে বইমেলা আয়োজনে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়ে প্রতিটি বন্ধুসভার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে জাতীয় পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসেন মল্লিক বলেন, ‘স্থানীয় মানুষদের বই পড়ায় উৎসাহিত করতেই এই উদ্যোগ। কেবল ফেব্রুয়ারি নয়, বছরজুড়েই এই মেলা করা যাবে। যেসব বন্ধুসভা এ মাসে মেলার আয়োজন করতে পারেনি, তারা আগামী দিনে নানা সময়ে বইমেলা করার উদ্যোগ নিচ্ছে।’

ঐক্য আর তারুণ্যের শক্তিতে একুশকে স্মরণ

দেশ ও দেশের বাইরে প্রথম আলো বন্ধুসভার বন্ধুরাও দিনটিকে নানা আয়োজনে উদ্‌যাপন করেন, যার শুরু হয় প্রভাতফেরির মাধ্যমে শহীদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধাঞ্জলির মধ্য দিয়ে। দিনব্যাপী আলোচনা সভা, বর্ণমালা প্রদর্শনী, শিশুদের বর্ণমালা শেখানো, চিত্রাঙ্কন, কুইজ প্রতিযোগিতা, ম্যাগাজিন ও ভাঁজপত্র প্রকাশ, মায়ের ভাষায় চিঠি লেখা ও হাতের লেখা, গান, কবিতাসহ নানা সামাজিক-সাংস্কৃতিক আয়োজনে ভাষাশহীদদের স্মরণ করেন বন্ধুরা।

‘বই পড়লে তরুণ প্রজন্মের চিন্তাভাবনা শক্তিশালী হবে’

মেলার প্রথম দিন থেকেই বন্ধুসভার স্টলে প্রথমা প্রকাশনীর বই কিনতে ভিড় জমায় নানা শ্রেণির পাঠকেরা। বড় বোনের সঙ্গে বইমেলায় এসেছিল জামালপুর কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী রুফাইদা আদিবা। সে বলে, ‘প্রথমা প্রকাশনীর স্টল আছে জানতে পেরে মেলায় চলে এসেছি বিজ্ঞানচিন্তা ও কিশোর আলো নেওয়ার জন্য। পরে আরও বই কিনব।’

ভৈরব বইমেলায় সেরা স্টলের পুরস্কার পেল ভৈরব বন্ধুসভা

বইয়ের মান, স্টল সজ্জা ও শৃঙ্খলা—সব দিক বিবেচনা করে সেরা স্টল বিবেচনা করে বইমেলা কর্তৃপক্ষ। পাঠকের চাহিদা মাথায় রেখে সাহিত্যের প্রায় সব ধরনের বই নিয়ে স্টল সাজান বন্ধুরা। এবার আনিসুল হক, হুমায়ূন আহমেদ, আয়মান সাদিকসহ ভৈরবের বেশ কয়েকজন স্থানীয় লেখকদের বই বেশ ভালো বিক্রি হয়েছে। পাঠকের চাহিদার শীর্ষে ছিল থ্রিলার, সায়েন্স ফিকশন, রোমান্টিক উপন্যাস ও শিশুদের বই। আরও ছিল বন্ধু সংগ্রহ বুথ। বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী বন্ধু ফরম পূরণ করেন।

একুশের চেতনা ও বর্তমান প্রেক্ষাপট

পাঠচক্রে বন্ধুরা বাংলা না শেখার কারণ হিসেবে বাংলার প্রতি আমাদের অবহেলা, দক্ষ বাংলা শিক্ষক নিয়োগের অভাব, পাঠ্যক্রম—ইত্যাদি বিষয়কে দায়ী করেন। নোবিপ্রবি বন্ধুসভার বছরের পঞ্চম এই পাঠচক্র অনুষ্ঠিত হয় অনলাইনে গুগল মিট অ্যাপে।